Breaking

google news

Tuesday, May 03, 2022

ঈদের দিনে শিক্ষক পদপ্রার্থীদের খুশির খবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

খুশির ঈদে শিক্ষক পদপ্রার্থীদের খুশির খবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়



নিউজ ডেস্ক: অবশেষে খুশির ঈদে খুশির খবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । আন্দোলনকারী চাকরি প্রার্থীদের (WBSSC) কাছে ফোন এল মুখ্যমন্ত্রীর। ‘তোমাদের বিষয়টা আমার হাতে ছেড়ে দাও’, এমনটাই বললেন তিনি।


আজ রেড রোড থেকে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠান থেকে ফেরবার পথে মুখ্যমন্ত্রীর নজরে পড়েন অবস্থানরত পরীক্ষার্থীদের ধর্ণা (WBSSC)। ধর্মতলায় মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির পাদদেশে যে অবস্থান চলছে, সেখানেই ফোন করেন মুখ্যমন্ত্রী, এমনটাই দাবী অবস্থানরত শিক্ষকপদপ্রার্থীদের (WBSSC)


ঈদের সকালে তাঁদের সঙ্গেই ডিসি সাউথ আকাশ বাগারিয়ার ফোন মারফৎ কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ফোনেই আন্দোলনকারীরা কথা বলেন (WBSSC) বলে জানা গিয়েছে


চাকরিপ্রার্থীদের দাবি (WBSSC), মুখ্যমন্ত্রী তাঁদের সমস্যার সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির পাদদেশে অবস্থানরত এক আন্দোলনকারী জানান (WBSSC), “উনি ফোন করেছিলেন। উনি আমাদের পজিটিভ বার্তা দিয়েছেন। সহানুভূতির সঙ্গে উনি দেখবেন বলেছেন। ঈদের দিন আমরা এভাবে অসহায় হয়ে পড়ে রয়েছি, তাই উনি বলেছেন দেখবেন। নিজের হাতে উনি ব্যাপারটা নিয়েছেন। শিক্ষা দফতরের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে উনি দেখবেন বলেছেন।” আরও পড়ুনঃ কোনও ব্যক্তির আদর্শ ওজন ঠিক কত থাকা উচিত, জেনে নিন সহজ অঙ্ক 


প্রসঙ্গত মেধা তালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও চাকরি পাননি, এমন অভিযোগ তুলে ধর্মতলায় গান্ধিমূর্তির পাদদেশে এসএলএসটি (WBSLST) চাকরি প্রার্থীরা দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন। একইভাবে ধর্মতলার মোড়ে মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির পাদদেশে অবস্থানে বসেছেন শারীরশিক্ষা, কর্মশিক্ষার চাকরি প্রার্থীরা (WBSLST)। চাকরি প্রার্থীদের দাবি, যোগ্যতা থাকা সত্তেও নিয়োগ দেওয়া হয়নি। অন্যদিকে, অযোগ্যরা নিয়োগ পাচ্ছেন। ২০১৬ সালে পাশ করেছেন এরকম ১৩০০র বেশি চাকরি প্রার্থী আন্দোলনে নেমেছেন। আরও পড়ুনঃ জেনে নিন এই বছর জামাই ষষ্ঠীর তারিখ নির্ঘন্ট 


যুব ছাত্র অধিকার মঞ্চের স্টেট কো অর্ডিনেটার সুদীপ মণ্ডল জানিয়েছেন- মুখ্যমন্ত্রী পুনরায় যে কথা দিলেন তা দ্রুত কার্যকর করে আমাদের এই অসহায় অবস্থা থেকে দ্রুত মুক্তি দিন এই প্রার্থনাই করি। 

17 comments: