Latest Online Bengali News Portal

Click Here

Breaking

Friday, May 20, 2022

West Bengal DA Case - মহার্ঘ্যভাতা নিয়ে রাজ্য সরকারী কর্মীদের জন্য বিরাট খবর

DA Case Update: মহার্ঘ্যভাতা নিয়ে রাজ্য সরকারী কর্মীদের জন্য বিরাট খবর

 
DA Case Update




রাজ্যের দাখিল করা রায় পুনর্বিবেচনা মামলায়  বিচারপতি হরিশ টন্ডন এবং বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তর ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, প্রাথমিক ভাবে বলা যায় মহার্ঘ ভাতা কর্মচারীদের অধিকার (DA Case Update)। তা দেওয়া নিয়ে বিতর্ক থাকা উচিত নয়। তবে গতদিন রাজ্য সরকারি কর্মীদের মহার্ঘ্যভাতা (DA Case News) নিয়ে রায় দান রিজার্ভ রাখেন। আজ ছিলো এই মামলার (DA Case Update) রায় দান। 



প্রসঙ্গত ২০২০ সালের ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যে বকেয়া ডিএ মেটাতে হবে, রাজ্য সরকারকে এমন নির্দেশ দিয়েছিলো রাজ্য প্রশাসনিক ট্রাইবুনাল বা স্যাট (DA Case Update)। বকেয়া ডিএ নিয়ে রাজ্য সরকারি কর্মীদের বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে গত কয়েক বছর ধরে টানাপোড়েন চলছে রাজ্য সরকারের। গত বছরের জুলাইয়ে এক বছরের মধ্যে ডিএ মেটানোর নির্দেশ দেয়। রাজ্য সরকার রিভিউ পিটিশন করলে তা খারিজ হয়, বহাল থাকে ২০১৯ এর রায়ই (DA Case Update)



কিন্তু স্যাটের নির্দেশের পরও তা কার্যকর করেনি রাজ্য- এমন অভিযোগ এনে আদালত অবমাননার মামলাও দায়ের করা হয়। এর আগে ২০২০ সালে হাই কোর্ট নির্দেশ দিয়েছিল, সরকারি কর্মচারীদের মহার্ঘ ভাতা দিতেই হবে রাজ্যকে (DA Case Update)। সেই রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানায় রাজ্য। রাজ্যের যুক্তি, কেন্দ্রের সঙ্গে পাল্লা মহার্ঘ ভাতার দাবি ঠিক নয়। রাজ্য অনুযায়ী আলাদা আলাদা মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার আইনি অধিকার রয়েছে (dearness allowance Case Update)। কারণ, সব রাজ্যে জীবনযাত্রার খরচ এক নয়। রাজ্যের এই যুক্তির পাল্টা আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘আইন অনুযায়ী দেশের সর্বত্র রাজ্য কর্মচারীদের জন্য একই নিয়ম প্রযোজ্য। অথচ রাজ্যের যে কর্মী দিল্লিতে কাজ করছেন তাঁর মহার্ঘ ভাতা এখানের থেকে বেশি। এই বৈষম্য কেন তৈরি হবে?’’


আজ এই মামলার রায়দান পর্বে বিচারপতি বলেন- 

  • রাজ্যের আবেদন খারিজ করলো আদালত। 

  • কেন্দ্রের হারে দিতে হবে রাজ্য সরকারী কর্মীদের মহার্ঘ্যভাতা। 

  • মহার্ঘ্যভাতা রাজ্য সরকারী কর্মীদের আইনত অধিকার ।

  • আগামী তিন মাসের মধ্যে মহার্ঘ্যভাতা দিয়ে দিতে হবে।

  • স্যাটের রায়কেই বহাল রাখলো কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। 



আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হয়ে আপডেট পান প্রতিমুহূর্তে 

12 comments: