Breaking

Monday, May 16, 2022

Coochbehar News: শিঁকড়ের সন্ধানে কর্মসূচিতে জেলার ৩ প্রাক্তন তৃণমূল সভাপতি

গোসানিমারী রাজপাট ও কামতেস্বরী মন্দিরে পুজো দিয়ে শিঁকড়ের সন্ধানে কর্মসূচিতে জেলার ৩ প্রাক্তন তৃণমূল সভাপতি





রাহুল দেব বর্মন, দিনহাটাঃ 

সোমবার সকালে দিনহাটা ১ নম্বর ব্লকের গোসানিমারি রাজপাট শিকড়ের সন্ধানে যান কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের প্রাক্তন তিন সভাপতি তথা বর্ষিয়ান নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, গিরীন্দ্রনাথ বর্মন, বিনয় কৃষ্ণ বর্মন। এছাড়াও এদিন সেখানে উপস্থিত ছিলেন সিতাই বিধানসভার বিধায়ক জগদীশ চন্দ্র বর্মা বসুনিয়া, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যান হিতেন বর্মন,পরিমল বর্মন,খোকন মিয়া,দিলীপ রায় সহ একাধিক তৃণমূল নেতৃত্ব।

এদিন গোসানিমারি রাজপাটের ঐতিহাসিক নিদর্শনগুলি ঘুরে দেখার পর তারা সকলেই গোসানিমারী মা কামতেস্বরী মন্দিরে পুজো দেন এবং মন্দির চত্বরেই দীর্ঘসময় ধরে আলোচনা করেন ঐতিহাসিক নিদর্শন স্থানগুলি নিয়ে। 

এরপর দুপুরের আহার অর্থাৎ প্রসাদ গ্রহণের পর সংবাদমাধ্যমকে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে কোচবিহার জেলা তৃণমূল চেয়ারম্যান গিরীন্দ্রনাথ বর্মন বলেন শিকড়ের সন্ধান কর্মসূচির সঙ্গে রাজনীতির কোন সম্পর্ক নেই মূলত কোচবিহার জেলায় পুরনো বহু ঐতিহাসিক নিদর্শন রয়েছে যেগুলি নব প্রজন্ম জানেনা। সেই কারণেই জেলার ঐতিহাসিক নিদর্শন গুলি করে দেখার পাশাপাশি তাদের কাছে সেসব বিষয় তুলে ধরার মাধ্যমেই এই শিকড়ের সন্ধানে কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।



এদিন এই শিকড়ের সন্ধান কর্মসূচিতে জেলার তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতাদের সাথেই দেখা মিললো সিতাই বিধায়ককে এবং তিনি নিজে অংশ নিলেন শিকড়ের সন্ধান কর্মসূচিতে। জেলার তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতাদের সাথেই দেখা মিললো সিতাই বিধায়ককে,অংশ নিলেন শিকড়ের সন্ধান কর্মসূচিতে। 

উল্লেখ্য আগাগোড়াই রবীন্দ্রনাথ ঘোষ গোষ্ঠী বলে পরিচিত জগদীশচন্দ্র বর্মা বসুনিয়া,তবে কিছুদিন আগে কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের পুনরায় সভাপতির দায়িত্ব পার্থপ্রতিম রায় পাওয়ার পর তার সঙ্গে বিভিন্ন কর্মসূচিতে দেখা মিলেছিল সিতাই বিধায়ককে। তবে আজ আবারও বর্ষীয়ানদের দলেই ফিরলেন সিতাই বিধায়ক জগদীশ চন্দ্র বর্মা বসুনিয়া এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক মহল। যদিও এই বিষয়ে সিতাই বিধায়কের কোনরূপ প্রতিক্রিয়া মেলেনি।


No comments:

Post a Comment