Breaking

Sunday, July 18, 2021

নিশীথ প্রামাণিকের নাগরিকত্ত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলছে কংগ্রেস থেকে তৃণমূল কংগ্রেস, তোলপাড় রাজনীতি

নিশীথ প্রামাণিকের নাগরিকত্ত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলছে কংগ্রেস থেকে তৃণমূল কংগ্রেস, তোলপাড় রাজনীতি


Nishith Pramanik



সদ্য কোচবিহার জেলার সংসদ থেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় ঠাই পেয়েছেন নিশীথ প্রামাণিক। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন সাংসদ নিশীথ প্রামাণিক। সাথে পেয়েছেন ক্রীড়া ও যুব মন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব। আর মন্ত্রীত্ব পাওয়া থেকেই তাঁকে ঘিরে চলছে বিতর্ক। প্রথমে তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে ওঠে প্রশ্ন। এরপর নাগরিকত্ব নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। আর সেই নাগরিকত্ব নিয়ে ওঠা প্রশ্নই দিনের পর দিন জোরালো হচ্ছে।


কয়েকদিন আগেই কংগ্রেসের তরফে নিশীথ প্রামাণিকের নাগরিকত্ব নিয়ে প্রন তোলা হয়। বাংলা থেকে জয়ী বিজেপি সাংসদ বাংলাদেশের নাগরিক বলে দাবি করে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন অসম প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি তথা রাজ্যসভার সাংসদ রিপুণ বোরা। আর সেই অভিযোগকে আরও জোরালো করলো বাংলার শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু।


রিপুণ বোরার চিঠিটি টুইটারে শেয়ার করেন ব্রাত্য বসু লেখেন, ‘‌রাজ্যসভার সাংসদ রিপুণ বোরা সঠিক প্রশ্নই তুলেছেন। বহু সংবাদমাধ্যমে দেখা গিয়েছে যে, নিশীথ প্রামাণিক বাংলাদেশের নাগরিক। এমন লোককে মন্ত্রী করার আগে কি কিছুই খতিয়ে দেখা হয়নি? ভুলে গেলে চলবে না এই নিশীথের বিরুদ্ধে একাধিক অপরাধমূলক মামলা চলছে। লজ্জাজনক।’‌ উল্লেখ্য নিশীথ প্রামাণিক সহ দেশের নতুন সভার মন্ত্রীদের ৪২ শতাংশ একাধিক ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত, এমনটাই উঠে এসেছে এক রিপোর্টে।


রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রীর তরফে নিশীথের বিরুদ্ধে ওঠা এই প্রশ্ন নিয়ে ইতিমধ্যে শোরগোল পরে গিয়েছে রাজনীতিতে। রিপুণ বোরার যে চিঠিটি ব্রাত্য শেয়ার করেছেন, তাতে সত্যিই গুরুতর অভিযোগ রয়েছে। অসমের ওই কংগ্রেস সাংসদ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট তুলে ধরেছেন। দাবি করেছেন, নিশীথ প্রামাণিক আসলে বাংলাদেশের পলাশবাড়ির হরিনাথপুরের বাসিন্দা। এমনকী নিশীথ প্রামাণিক ভারতে এসেছিলেন কম্পিউটার কোর্স করার জন্য। তারপর এখানেই থেকে যান। এখানে স্থায়ীভাবে থাকতে গিয়ে প্রথমে তৃণমূল কংগ্রেসে এবং পরে বিজেপিতে যোগ দিয়ে সাংসদ হন।


এদিকে কিছুদিন আগেই কোচবিহার জেলা তৃণমূল সভাপতি প্রাথ প্রতিম রায় বাংলাদেশের দুটি পত্রিকার প্রতিবেদন তুলে ধরে নিশীথকে বাংলাদেশী বলেই দাবি করেন। কংগ্রেস নেতা রিপুণ বোরার আরও দাবি, নিশীথ যে নথিপত্র দেখিয়ে নিজেকে কোচবিহারের বাসিন্দা বলে দাবি করেছেন, সেইসব নথিপত্র আসলে ভুয়ো। এমনকী জালিয়াতি করে তৈরি করা হয়েছে। একই অভিযোগ এবার তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুও তুললেন। যা নিয়ে রাজ্য–রাজনীতিতে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। যদিও এই বিষয়ে নিশীথের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

No comments:

Post a Comment