Breaking

Saturday, December 19, 2020

একদিকে হাড় কাঁপানো শীত অপরদিকে সরকারের অনমনীয় মনোভাব- দুয়ের সাথে তীব্র লড়াইয়ে রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকরা

একদিকে হাড় কাঁপানো শীত অপরদিকে সরকারের অনমনীয় মনোভাব- দুয়ের সাথে তীব্র লড়াইয়ে রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকরা




দীর্ঘ নয় মাস যাবৎ কোভিড পরিস্থিতি এবং শিক্ষা মন্ত্রীর আশ্বাসের কারণে বাংলার 48000 পার্শ্বশিক্ষক,শিক্ষিকারা অসহায় অবস্থায় দিন কাটাতে বাধ্য হয়েছে। তারা ভেবেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী তাদের কথা রাখবেন। কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন বিষয়ে এই সরকার তাদের দান দক্ষিণা চালু করলেও কোনো এক অজ্ঞাত কারনে 48000 পার্শ্ব শিক্ষিকরা সম্পূর্ণ রূপে বঞ্চিত। আর তাই মিথ্যে আশ্বাসে আশ্বস্ত না হয়ে আবার আন্দোলনে 48000 শিক্ষক-এমনটাই জানা গেছে সংগঠন সূত্রে। আবারও "পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্য মঞ্চ" তাদের ন্যায্য দাবি "বেতন কাঠামো" এবং দশ বছর আগে পার্শ্ব শিক্ষকদের কে দেওয়া মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি রক্ষার দাবি নিয়ে 18 ডিসেম্বর ,2020 থেকে লাগাতার অখণ্ড পার্শ্ব শিক্ষক আন্দোলনের ডাক দিয়েছে ।




 

গত মাসে ঐতিহাসিক বিকাশ ভবন আন্দোলনের ঐতিহাসিক দিন 11 ই নভেম্বর শিয়ালদহ থেকে মিছিল সহকারে রাজভবনে রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তাঁদের বঞ্চনার কথা তুলে ধরতে কর্মসূচি নেওয়া হয়েছিলো। কিন্তু কর্মসুচী শুরুর আগেই ঐক্যমঞ্চের নেতৃত্বকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আরও পড়ুনঃ করোনা ভাইরাস তাঁর চরিত্র বদল করে নুতন রূপে-করোনার থেকেও ভায়ানক, আবার নুতন বিপদে বিশ্ব! new coronavirus mutation more contagious

তবে ১৮ ডিসেম্বর থেকে যে লাগাতার আন্দোলনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিলো তার জন্য আদালতের অনুমতি নেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন বিধি নিষেধ মেনে দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত লাগাতার আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্যমঞ্চের আহ্বায়ক ভগীরথ ঘোষ। 

একদিকে হাড় কাপানো শীত অপরদিকে সরকারের অনমনীয় মনোভাব- দুয়ের সাথে তীব্র লড়াইয়ে রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকরা।

No comments:

Post a Comment

পৃষ্ঠা