Latest Online Bengali News Portal

Breaking

Friday, September 02, 2022

Super Typhoon Hinnamnor: 2022 এর সবচেয়ে মহা শক্তিশালী টাইফুন ! বড় বিপর্যয়ের আশঙ্কা

Super Typhoon Hinnamnor


Super Typhoon Hinnamnor





পূর্ব চীন সাগরে ২০২২ সালের সবচেয়ে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হয়েছে। চলতি বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়, সুপার টাইফুন ‘হিন্নামনর’ (Super Typhoon Hinnamnor) , পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরজুড়ে রসদ সংগ্রহ করেছে। বর্তমানে ওই ঘূর্ণিঝড় জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়ার দ্বীপগুলোর দিকে ধেয়ে আসছে ঘণ্টায় ২৪১ কিলোমিটার গতিবেগে।


ঘূর্ণিঝড়ের (Super Typhoon Hinnamnor) সতর্কবার্তার জেরে ওকিনাওয়া অঞ্চলে ইতিমধ্যেই বিমান চলাচল ব্যাহত হয়েছে। বেশ কয়েকটি বিমান সংস্থা চলতি সপ্তাহে ওই অঞ্চলে বিমান চলাচল বাতিল ঘোষণা করেছে। ‘হিন্নামনর’ (Super Typhoon Hinnamnor) হল এই বছরের ১১তম গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড়, যা টাইফুনে পরিণত হয়েছে৷

Super Typhoon Hinnamnor

বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) সকাল পর্যন্ত, হংকং আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, সর্বোচ্চ বা পঞ্চম স্তরের এই ঘূর্ণিঝড় (Super Typhoon Hinnamnor) জাপানের ওকিনাওয়া উপকূল থেকে প্রায় ২৩০ কিলোমিটার দূরে ছিল। এই ঘূর্ণিঝড়ের (Super Typhoon Hinnamnor) জেরে জাপান তো বটেই হংকং-এর বিভিন্ন অঞ্চলেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড়ের সতর্কতা জারি করা হয়েছে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, এই ঘূর্ণিঝড় জাপান দ্বীপপুঞ্জের দিকে ধীরে ধীরে এগোনোর সঙ্গেই আরও বেশি শক্তিশালী হবে।


ঘূর্ণিঝড়ের (Super Typhoon Hinnamnor) কারণে দক্ষিণ জাপানের দ্বীপগুলো বড় হুমকিতে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। চীনের পূর্ব উপকূল বরাবর বন্য ও ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ারও ঝুঁকি রয়েছে।


যুক্তরাষ্ট্রের ঘূর্ণিঝড় সতর্কীকরণ কেন্দ্রের তথ্যমতে, সুপার টাইফুন ‘হিন্নামনোর’ (Super Typhoon Hinnamnor) বর্তমানে ঘণ্টায় প্রায় ১৬০ মাইল বেগে বয়ে চলেছে। এর চারপাশে প্রতি ঘণ্টায় ১৯৫ মাইলের বেশি গতিতে দমকা হাওয়া বইছে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগরে সর্বোচ্চ ৫০ ফুট উঁচু ঢেউ সৃষ্টি হয়েছে।


জাপান আবহাওয়া সংস্থার কর্মকর্তারা জানান, এ বছর রেকর্ডকৃত ঝড়গুলোর গতি-প্রকৃতির ভিত্তিতে ২০২২ সালের সবচেয়ে শক্তিশালী ঝড় হতে যাচ্ছে হিন্নামনোর (Super Typhoon Hinnamnor)। হংকং অবজারভেটরি জানায়, সকাল ১০টায় ঝড়ের কেন্দ্র ছিল জাপানের ওকিনাওয়া থেকে প্রায় ২৩০ কিলোমিটার পূর্বে। পশ্চিম-দক্ষিণ-পশ্চিমে অগ্রসর হয়ে এটি রিউকিউ দ্বীপের দিকে ধেয়ে যেতে পারে বলে পূর্বাভাস রয়েছে। আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস অনুযায়ী ঘূর্ণিঝড়টি আগামীকাল থেকে কিছুটা শক্তি হারাবে।


6 comments:

  1. Super Typhoon Hinnamnor এর লক্ষণ নয় তো চারিদিকে বৃষ্টিপাত।

    ReplyDelete
  2. সবাই খুব সাবধানে থাকবেন

    ReplyDelete
  3. এ তো ভয়ানক কান্ড

    ReplyDelete
  4. Tabahi aur tabahi ka manjar suru hone hi wala hain

    ReplyDelete
  5. ওই জন্য প্রতিদিন বৃষ্টি হয়

    ReplyDelete