Breaking

Saturday, June 18, 2022

SLST News : SLST চাকরীপ্রার্থীদের সমর্থনে মিছিল করতে গিয়ে গ্রেপ্তার শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্যমঞ্চের সম্পাদক

SLST চাকরীপ্রার্থীদের সমর্থনে মিছিল করতে গিয়ে গ্রেপ্তার শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্যমঞ্চের সম্পাদক সহ আরও অনেকে 


a police van and some people
শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্যমঞ্চের সম্পাদক কিংকর অধিকারী



SLST চাকরীপ্রার্থীদের সমর্থনে মিছিল করতে গিয়ে গ্রেপ্তার শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্যমঞ্চের সম্পাদক কিংকর অধিকারী। তিনি স্যোসাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন- " কলেজ স্ট্রিটে পৌঁছানো মাত্রই আমাকে এরেস্ট করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। মোবাইল কেড়ে নেওয়া হলো।"


আজ SLST 2016 নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেনী ও কর্ম ও শারীরশিক্ষার চাকরিপ্রার্থী বঞ্চিত ছেলে মেয়েদের পক্ষ থেকে একটা মিছিল ছিল। 2 টোয় জমায়েত ও তিনটেতে মিছিল শুরু হওয়ার কথা ছিলো।

শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-শিক্ষানুরাগী ঐক্যমঞ্চ''-এর সভাপতি বিশ্বজিৎ মিত্র এক বিবৃতিতে বলেন--

" 2016 1st এসএলএসটি বঞ্চিত চাকরীপ্রার্থীদের আহবানে আজ কলেজ স্ট্রিট কফি হাউজের সামনে থেকে মিছিল হওয়ার কথা ছিল। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের পুলিশি অত্যাচারে সেই মিছিল শুরু হবার আগেই মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের গ্রেফতার করা হলো। ঐক্যমঞ্চের সম্পাদক কিংকর অধিকারী সহ আরো অনেকেই এই পুলিশি অত্যাচারে গ্রেপ্তার বরণ করেন।"

তিনি আরও জানান- "গোটা কফি হাউস চত্বর শত শত পুলিশ ঘিরে রেখে সাধারণ মানুষকে শুধু হয়রানি করলেন না সন্দেহবশত পথচারীদেরও গ্রেপ্তার করলেন। আমরা এই বর্বোরোচিত পুলিশি অত্যাচারের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। একটা গণতান্ত্রিক দেশে মিছিল করার মতো গণতান্ত্রিক অধিকার সাধারণ মানুষের কাছ থেকে কেড়ে নেওয়া হচ্ছে এর থেকে লজ্জার কিছু থাকতে পারে না।"

প্রসঙ্গত, SLST পরীক্ষায় পাস করা চাকরিপ্রার্থীদের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 2019 সালে তাদের 29 দিনের অনশন মঞ্চে গিয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে লোকসভা ভোটের পর তাদের বিষয়টি তিনি সুরাহা করবেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুরোধে তারা অনশন তুলে নেয়।




বিধানসভায় তৃতীয়বারের জন্য তৃণমূল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেল কিন্তু চাকরিপ্রার্থীরা সেই অন্ধকারেই থেকে গেল।

গতকাল তাদের আন্দোলন ছিল এবং তাদের কে পুলিশ গ্রেফতার করে বিকাল পাঁচটা নাগাদ। আজ তারই প্রতিবাদে এবং নিয়োগে দুর্নীতির বিরুদ্ধে ও অবিলম্বে নিয়োগের দাবিতে মিছিল হওয়ার কথা ছিলো ।

8 comments: