Kiss Day- আসুন জেনে নেই চুমুর ৭ উপকারিতা

Happy Kiss Day- আসুন জেনে নেই চুমুর ৭ উপকারিতা 

kiss on lip



সামনেই কিস ডে, বাংলা চুম্বন দিবস। এই চুমু কি শুধু ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ! না চুম্বনকে মনের খোরাকের পাশাপাশি শরীরের খোরাকও বলা যেতে পারে। চুমুর রয়েছে অনেক  উপকারিতা। আসুন আজ কিস ডে তে জেনে নেই চুমুর ৭ উপকারিতা। 

এক)  চুম্বনের ফলে মুখের প্রায় ৩০টি পেশির নড়াচড়া হয়। ফলে মুখমণ্ডলের রক্তচলাচল বৃদ্ধি পায়। তাই ত্বক আরও উজ্জ্বল দেখায়।

Happy Kiss Day





দুই)  চুমু খাওয়ার সময় যে উত্তেজনা তৈরি হয়, তাতে হার্টের গতি বেড়ে যায়। ফলে শরীরে রক্তসঞ্চালন ভালো হয়। এর ফলে রক্তনালী শিথিল হওয়ায় রক্তপ্রবাহ ভালো হয়। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে।  কোলেস্টরলের পরিমাণও কমে যায়। ফলে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোকের মতন ঘটনার সম্ভাবনাও হ্রাস পায়।

তিন) মাথায় যন্ত্রণা বা মাইগ্রেনের মতো ক্রনিক ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে পারে গভীর একটি চুমু।

Happy Kiss Day


চার) যারা নিয়মিত চুমু খান, তাদের অনিদ্রার সমস্যা হয় না।

পাঁচ) চুমু খাওয়ার ফলে শরীরের অক্সিটোসিনের মাত্রা বেড়ে যায়। ফলে স্নায়ু শান্ত হয়।

ছয়) চুমু দাঁত ও মুখের সুস্বাস্থ্যের জন্যও ভালো। চুমু লালা প্রবাহকে ত্বরাণ্বিত করে। এটি অ্যাসিডের কার্যক্ষমতা কমিয়ে দেয়, খাবারের কণাগুলো সরিয়ে দেয় এবং দাঁতের ক্ষয়রোধ করে।

Happy Kiss Day


সাত) চুম্বনে মানসিক চাপ কমে যায় অনেকখানি। শারীরিক অনুশীলন করার মতোই চুমু শরীরে ‘হ্যাপি হরমোন’ নিঃসরণ করে। যা অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার প্রবৃত্তি কমিয়ে দেয়।

তবে মুখের কোন অসুখ হলে সে সময় চুমু থেকে বিরত থাকাই ভালো। 

তথ্যসূত্রঃ Healthline


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

7 মন্তব্যসমূহ

thanks