Breaking

Thursday, October 15, 2020

পাঞ্জাব অধিনায়ক এবং নিজেদের প্রাক্তন সতীর্থের কাছে হার ব্যাঙ্গালোরের

পাঞ্জাব অধিনায়ক এবং নিজেদের প্রাক্তন সতীর্থের কাছে হার ব্যাঙ্গালোরের 


SANGBAD EKALAVYA:

চলতি মরশুমে ৭টি ম্যাচে মাত্র একটিতে জয় পেয়ে তালিকায় সবার শেষে আছে প্রীতি জিন্টার কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব (Kings XI Punjab)। অপরদিকে ৭টি ম্যাচে ৫টি জয়ের ফলে তৃতীয় স্থানে থাকা রয়্যাল চ্যালেন্জার্স ব্যাঙ্গালোর চলতি আইপিএলে নতুন রূপে চেনাচ্ছে নিজেদের। যদিও বৃহস্পতিবার পাঞ্জাব অধিনায়ক এবং নিজেদের এক প্রাক্তন সতীর্থের সৌজন্যে পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ৮ উইকেটে হারতে হলো বিরাট কোহলিদের। চলতি মরশুমে প্রথম মাঠে নেমে দলের জয়ে অধিনায়ককে যোগ্য সংগত দিলেন ক্রিস গেইল।


এদিন দুবাইয়ের শারজা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন ব্যাঙ্গালোর অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দুই ওপেনার ফিঞ্চ (১৮ বলে ২০) এবং দেবদূত পারিক্কাল (১২ বলে ১৮) শুরুটা ভালো করলেও বেশিদূর টানতে পারেননি। অধিনায়ক কোহলি রান পেলেও মাত্র ২ রানের জন্য শতরান হাতছাড়া করেন (৩৯ বলে ৪৮)। এদিন ব্যর্থ হন তারকা ব্যাটসম্যান ডিভিলিয়ার্স (৫ বলে ২)। কিন্তু শেষদিকে ক্রিস মরিস (৮ বলে ২৫) এবং ইশুরু উদানার (৫ বলে ১০) ছোট্ট ঝড়ে ১৭১-৬ এর স্কোর খাড়া করে ব্যাঙ্গালোর। ইনিংসের শেষ ওভারে মহম্মদ শামির ৬ বলে ২৪ রান তোলেন এই দুজন।


জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ভাবে খেলতে থাকেন অধিনায়ক লোকেশ রাহুল এবং ময়াঙ্ক আগরওয়াল। ময়াঙ্ক ৩টি ছয় ও ৪টি চারের সাহায্যে ২৫ বলে ৪৫ রান করে আউট হলেও রাহুল এবং আজ প্রথম খেলতে নাম গেইল ছয়ের বন্যা বইয়ে দেন মাঠে। দু'জনেই পাঁচটি করে বিশাল ছয় মারেন। শেষ ২ ওভারে জয়ের জন্য পাঞ্জাবের দরকার ছিল মাত্র ৭ রান। শেষ ওভারে গেইল ৪৫ বলে ৫৩ রান করে রানআউট হয়ে গেলে শেষ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল মাত্র ১ রান। সুপার ওভার যখন উঁকি মারছিলো ঠিক তখনই শেষ বলে ছয় মেরে ম্যাচ শেষ করেন নিকোলাস পুরান। অধিনায়ক রাহুল ৪৯ বলে ৬১ রান করে অপরাজিত থাকেন। ব্যাঙ্গালোরের হয়ে একটি উইকেট পান যজুবেন্দ্র চাহাল। 

No comments:

Post a Comment