Breaking

Friday, February 26, 2021

স্বস্তির নিঃশ্বাস! নয়া প্রাথমিক শিক্ষকদের জন‍্য নতুন নির্দেশিকা



স্বস্তির নিঃশ্বাস! নয়া প্রাথমিক শিক্ষকদের জন‍্য নতুন নির্দেশিকা 




প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে কিছুটা স্বস্তি মিলল নব নিযুক্ত শিক্ষকদের। স্থগিতাদেশের পর নব নিযুক্ত শিক্ষকদের বেতন বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। সপ্তাহখানেক আহেই ১৫২৮৪ জন প্রার্থীর চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড। সেই তালিকাকে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা হয়। অস্বচ্ছতার অভিযোগ ওঠে। এরপর, আদালতের তরফে প্রাথমিক নিয়োগের স্থগিতাদেশ জারি করা হয়। এদিকে অনেকে কাউন্সেলিংয়ের অপেক্ষায় আবার অনেকে অ্যাপইয়েন্টমেন্ট লেটার হাতে পেয়ে জয়েন পর্যন্ত করে ফেলেছে। জেলায় জেলায় স্কুল ইন্সপেক্টরদের নতুন নির্দেশিকা পাঠিয়ে ডিস্ট্রিক্ট প্রাইমারি স্কুল কাউন্সিলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে ২০১৪ টেটের নিয়োগে যারা জয়েন করেছে তাঁদের ক্ষেত্রে বেতনের বিল পাঠানো স্থগিত রাখতে হবে।




এর ফলে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে নবনিযুক্ত শিক্ষকদের। বিশবাও জলে চলে যায় তাঁদের আশা। তবে আজ আপনাদের এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে স্বস্তি দিল নব নিযুক্ত শিক্ষক দের। বেতন বিল পাঠানোর স্থগিতাদেশ তুলে নেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে যে, পূর্বের সেই বিজ্ঞপ্তি বাতিল করা হয়েছে। অর্থাৎ নব নিযুক্ত শিক্ষকদের বেতনের বিল পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 




২০২০ সালের শেষের দিকে নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ‍্যায় প্রাথমিক নিয়োগ প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দেন। ধাপে ধাপে প্রাথমিকে কুড়ি হাজারের বেশি পদে নিয়োগের কথা জানান। তার প্রথম ধাপে ১৫২৮৪ জনের তালিকা প্রকাশ করা হয়। ২০২১ জানুয়ারি মাসের ১০ থেকে ১৭ তারিখ পর্যন্ত ইন্টারভিউ হয়। প্রায় সমগ্র প্রক্রিয়া শেষ করে ১৬ ফেব্রুয়ারি ফল প্রকাশ করে বোর্ড। শুরু হয় কাউন্সেলিং ও নিয়োগপত্র দেওয়ার কাজ। কিন্তু অস্বচ্ছতার অভিযোগে সেই নিয়োগ স্থগিত করে দেয় আদালত। সূত্রের খবর, এই রায়ের বিরুদ্ধে ডিভিশন বেঞ্চে যাওয়ার কথা ভাবছে প্রাথমিক বোর্ড। মামলাকারীদের দাবি, যোগ্য প্রার্থীদের মেধাতালিকা প্রকাশ করা হয়নি, ফলে নিয়োগ প্রক্রিয়ার মধ্যে অস্বচ্ছতা রয়েছে।

No comments:

Post a Comment