Breaking

google news

Sunday, May 22, 2022

তৃতীয় বর্ষ আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসব Santali Cine Award - 2022

তৃতীয় বর্ষ আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসব সাঁওতালি সিনে এওয়ার্ড - ২০২২

Santali Cine Award - 2022




রামকৃষ্ণ চ্যাটার্জী: আসানসোল:-

তৃতীয় বর্ষ আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসব। আসানসোলের রবীন্দ্রভবনে। প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে উৎসবের সূচনা করেন রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটক, আসানসোলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা।



রবিবার এ আই এস পি এ- এর উদ্যোগে তৃতীয় বর্ষ আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসব সাঁওতালি সিনে এওয়ার্ড - ২০২২ অনুষ্ঠিত হল আসানসোলের রবীন্দ্র ভবনে।

প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসব উদ্বোধন করেন রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটক ও আসানসোলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা। বিশেষ করে আদিবাসী প্রতিভাদের নিয়েই চলচ্চিত্র উৎসব। যাতে আরও উন্নতমানের আদিবাসী চলচ্চিত্র করা যায়। সেই লক্ষ নিয়েই এদিনের আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসব। জেলা ছড়িয়ে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে এসেছে চলচ্চিত্র উৎসবে। উড়িষ্যা,ঝাড়খণ্ড ও বিহার থেকেও আসে যোগ দিতে।




রাজ্যের আইন ও পূর্ত দপ্তরের মন্ত্রী মলয় ঘটক জানান,মন্ত্রী বির বাহা হাসদা বলেছিলেন আমার সাঁওতাল সিনেমা জগৎ শুরু কিন্তু আসানসোল থেকে। আমি বলবো আপনারা সাঁওতাল সিনেমা করুন আসানসোল আপনাদের পাশে সর্বদাই রইছে বলে জানান বক্তব্যের মাধ্যমে। পাশাপাশি সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা জানান,আমি অনেক ভাষায় সিনেমা করেছি। আপনাদের অনুষ্ঠানে এসেছি ভালোবাসা দিতে আর ভালোবাসা নিতে।




এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের আইন ও পূর্ত দপ্তরের মন্ত্রী মলয় ঘটক,নব নির্বাচিত আসানসোলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহা,ডেপুটি মেয়র অভিজিৎ ঘটক,কাউন্সিলার শ্যাম সরেন,তৃণমূলের প্রবীণ নেতা প্রবোধ রায় ( ক্যাপ্টেন দা) এছাড়াও (এআইএসপিএ) এর আদিবাসী চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্যোক্তা ও কলাকুশলীরা।




এক আদিবাসী অভিনেতা জানান, আজ আমরা খুবই খুশি এবং আনন্দিত। এরকম প্রোগ্রাম আমাদের আগে হতো কিন্তু করোনার কারণে আমাদের প্রোগ্রাম দু'বছর বন্ধ ছিল আজ আবার এই প্রোগ্রাম আমাদের শুরু হলো। আজ এখানে শত্রুঘ্ন সিনহা মহাশয় কে পেয়ে আমরা খুবই আনন্দিত। উনার কাছ থেকে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারলাম। তবে উনার কাছে আমাদের একটা আবেদন থাকবে যদি আমাদের এখানে আসানসোলে যদি একটি ফিল্ম একাডেমি খুলে দেওয়া হয়। যাতে আমরা এখানে ট্রেনিং, এডুকেশন নিতে পারব।




পাশাপাশি এক আদিবাসী নায়িকা সোহিনী মাড্ডী জানান,আদিবাসীরা আগের থেকে অনেক বেশি ডেভলপ হয়েছে এতে আমরা অনেক খুশি। আজকে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারলাম যে কি করে আমাদের এই আদিবাসীরা আরও উন্নত করতে পারবো। আমরা চাই ঝাড়খন্ড উড়িষ্যার থেকেও যেন আমরা সবার আগে এগিয়ে যেতে পারি।




আদিবাসী গায়িকা লাংতিতি কিষ্কু জানান, ট্যালেন্ট প্রদর্শন করার জন্য একটা প্লাটফর্ম দরকার। সেরকম একটা আমারা প্ল্যাটফর্ম চাইছি। এবং সরকারী কিছু যদি অনুদান হয়। তবে এখানে এসে খুব ভালো লাগছে। বিশেষ করে আসানসোলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহাকে আমরা পর্দার পিছনে দেখেছি। কিন্তু আজ স্ব চোখে দেখলাম খুব ভালো লাগলো।




পাশাপাশি হাস্যকৌতুক শিল্পী তপন টুডু জানান,সাঁওতালি অভিনেতা এর উদ্দেশ্যে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি তথা আসানসোলের সাংসদ শত্রুঘ্ন সিনহার কাছ থেকে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারলাম। যে ওনারা চাইছেন যে আমাদের এই সাঁওতাল ইন্ডাস্ট্রিকে আরো আগে কি করে নিয়ে যাব। এই প্রোগ্রামে পশ্চিমবঙ্গের আসানসোলে আসতে পেরে খুব ভালো লাগছে। আমি বোকারো স্টিল সিটি থেকে এসেছি বলে জানিয়েছেন।


No comments:

Post a Comment